ডায়াবেটিস রোগীর পায়ের যত্ন নেওয়ার গুরুত্বপূর্ণ কারণ

ডায়াবেটিস আছে বর্তমান সময়ের একটি ঘাতক ব্যাধি। মূলত ডায়াবেটিস হয় আমাদের শরীরের সুগারের মাত্রা বেড়ে যাওয়ার কারণে। আমাদের শরীরে একপ্রকার ইনসুলিন তৈরি হয় যা আমাদের শরীরে সুগারের মাত্রা ঠিক থাকতে সহযোগিতা করে। ডায়াবেটিস রোগীদের জীবনকে দুর্বিষহ করে তোলে। খাদ্যাভ্যাস থেকে শুরু করে সকল কিছু বদলে ফেলতে হয় এই ডায়াবেটিসের কারণে। ডায়াবেটিস রোগীদের কাটাছেঁড়া সহজে ছাড়তে চায় না। ক্ষতস্থান সাথে প্রচুর পরিমানে সময় লাগে আর আমাদের বা হচ্ছে এমন একটা স্থান যেতে সবচাইতে বেশি আক্রান্ত হয়।বিভিন্ন ধরনের আঘাতে। তাই ডায়াবেটিস রোগীদের পায়ের যত্ন নেয়া অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয়। কারণ কোনো কারণে কোন ক্ষত হলে তা খুব সহজে ছাড়বে না এবং তা থেকে মারাত্মক আকার ধারণ করতে পারে। তাই আমরা যাব ডায়াবেটিস রোগীর পায়ের যত্ন কিভাবে নেওয়া উচিত –

আমাদের তা সবচেয়ে বেশি  ক্ষতিগ্রস্ত হয়। যখন কোন কারণে আঘাত পেয়ে কেটে গেলে ক্ষত সৃষ্টি হতে পারে। ডায়াবেটিস রোগীদের ক্ষেত্রে তা মারাত্মক হয়ে দাঁড়াতে পারে। তাই বাইরে কোথায় গেলে বাসায় ফিরেই পায়ের দিকে লক্ষ্য রাখতে হবে যে কোন প্রকার আঘাত পেয়েছে কিনা বা  কোথাও কেটে গেছে কিনা।যদি কোথাও আঘাত পায় এবং কেটে যায় তার দ্রুত চিকিৎসা নিতে হবে এবং পরিচর্যা করতে হবে।

কখনই টাইট জুতা পরা উচিত নয় সব সময় প্রয়োজনের তুলনায় একটু বড় সাইজের জুতা পরা যেতে পারে। কারণ জুতা টাইট হলে পায়ে ফোসকা পড়তে পারে এবং যার থেকে কত সৃষ্টি হতে পারে।

বিকেল বেলা জুতা কিনতে যেতে হবে কারণ ডায়াবেটিস রোগীদের পা  বিকেলের দিকে একটু ফোলা থাকে।যার ফলে ভিকেলস না জুতা কিনতে গেলে সেটি পায়ে ঠিক মত লাগবে। অপরদিকে সকালবেলা পা স্বাভাবিক অবস্থায় থাকার কারনে সকালবেলা জুতা কিনলে তা বিকালে পড়ায় অসুবিধা হতে পারে।

পায়ের নখ কেটে ছোট রাখতে হবে কারন পায়ের নখ বড় হয়ে গেলে তা আঁচড় লাগতে পারে এবং কত সৃষ্টি হতে পারে।খালি পায়ে কোথাও বাইরে বের হওয়া উচিত নয় কারন ডায়াবেটিস রোগীদের পায়ের স্নায়ুতন্ত্র কম কাজ করে। যার কারণে খালি পায়ে বাইরে গেলে  তারপরে কেটে গেল সহজে বুঝতে পারে না।

রাত্রেবেলা ঘুমোতে যাওয়ার আগে হালকা গরম পানি দিয়ে ধুয়ে নরম কাপড় দিয়ে মুছে ঘুমাতে যেতে হবে।

উপরোক্ত সকল নিয়ম মেনে চললে ডায়াবেটিস রোগীদের পায়ের সমস্যা থেকে মুক্ত থাকবে।তাই এসকল নিয়ম কানুন মেনে চলা অত্যন্ত জরুরী।

শ্যামপুরের ডায়াবেটিস রোগের থেকে দূরে থাকবে আমাদের নিয়মিত ব্যায়াম করা এবং সঠিক খাদ্য গ্রহণ করতে হবে। শরীরের মেদ জমতে দেওয়া যাবে না। প্রতিদিন খাদ্য গ্রহণের আমাদের যে পরিমাণ ক্যালরি উৎপন্ন হবে তা পরিশ্রমের মাধ্যমে  খরচ করে ফেলার চেষ্টা করতে হবে।

 

(Visited 10 times, 1 visits today)

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *