দাঁত ভালো রাখার কয়েকটি টিপস

দাত আমাদের অমূল্য সম্পদ।কারন দাতের প্রয়োজনীয়তা শুধু যে খাদ্য চিবিয়ে খেতে তা নয়।দাত আমাদের সৌন্দর্য বৃদ্ধিতেও গুরুত্বপূর্ন ভূমিকা রাখে।তাই আমাদের সকলের তাদের প্রতি যত্নশীল হওয়া উচিত। আমাদেরটা দাঁত বিভিন্ন কারণে ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারে। এর মধ্যে অন্যতম কারণ গুলো হচ্ছে খাবার পরে ভালো করে মুখ না ধোয়া। অনেকেই আছে খাবার পরে ভালো করে মুখ কুলকুচি করে ধুয়ে ফেলে না। যার ফলে মুখের ভেতরে দাঁতের ফাঁকে খাবার গুলো জমে থাকে। যা দাঁতের সমস্যা হওয়ার অন্যতম কারণ। এছাড়াও আমরা অনেকেই আছে যারা রাতে বেলা দাঁত ব্রাশ করে না শুধু একবারই সকালে দাঁত ব্রাশ করে। এ কারণে দাঁতে পোকার সংক্রমণ দেখা দিতে পারে। দাঁতের পোকা বলতে আমরা যে সকল খাবার খাই তা যদি ভালোভাবে পরিষ্কার করা না হয় তাহলে সেগুলো থেকে বিভিন্ন ব্যাকটেরিয়ার জন্ম নেয়।আর যেগুলো আমাদের দাঁতের ক্ষয় সাধন করে থাকে।

আমাদের দাঁত ভালো রাখতে যে কাজগুলো করা উচিতঃ

প্রতিদিন দুই বেলা দাঁত ব্রাশ করা-
আমাদের সকলের প্রতিদিন দুইবেলা করে দাঁত ব্রাশ করা উচিত।সকালে এবং রাতে ঘুমোতে যাওয়ার আগে অবশ্যই আমাদের দাঁত ব্রাশ করতে হবে।রাতে খাবার পরে আমাদের দাঁতের ফাঁকে জমে থাকা খাদ্যকণা আমাদের দাঁতের ভিতরে ব্যাকটেরিয়ার জন্ম দেয়।এই ব্যাকটেরিয়া আমাদের দাঁতের ক্ষয় সাধন করে। আর সকাল এবং রাতে ঘুমাতে যাওয়ার সময় দাঁত ব্রাশ করলে আমাদের দাঁতের ফাঁকে ব্যাকটেরিয়া জমে থাকতে পারে না।এবং আমাদের দাঁতের ক্ষয় সাধন করতে পারে না।

প্রতি তিন মাস পর পর আমাদের টুথব্রাশ বদলানো উচিত। এবং ফ্লেক্সিবল টুথব্রাশ বাছাই করা উচিত কারণ এটি সহজে বাকানো যায় এবং মুখের সব জায়গায় খুব ভালোভাবে পরিষ্কার করে।

নিয়মিত মাউথ ওয়াশ ব্যবহার করতে হবে –

ব্রাশ আমাদের দাঁতের সব কোনায় পৌঁছাতে পারে না।তাই ব্যাকটেরিয়া থেকেই যায়।এবং সম্পূর্ণরূপে দাঁত পরিষ্কার হয় না।তাই আমাদের দাত সম্পূর্ণরূপে পরিষ্কার করতে হলে মাউথওয়াশ ব্যবহার করা উচিত।কারণ মাউথওয়াশ মুখের সমস্ত কোনায় গিয়ে দাঁত সম্পূর্ণরূপে পরিষ্কার করে। নিয়মিত মাউথওয়াশ ব্যবহার করার ফলে একদিকে যেমন দাঁত পরিষ্কার থাকবে।তেমনি অনেকেরই আছে মুখে দুর্গন্ধ সৃষ্টি হওয়ার সমস্যা যা মাউথওয়াশ ব্যবহারের ফলে চলে যাবে।

ডেন্টিস্টের পরামর্শ গ্রহণ করা –

আমরা মূলত দাঁতের কোন সমস্যা দেখা দিলে তারপরে ডেন্টিস্টের পরামর্শ গ্রহণ করি। যার ফলে হয়তো দাত তুলে ফেলতে হয় বা অন্য কিছু করতে হয়। কিন্তু আমাদের দাঁত সুস্থ থাকলেও নিয়মিত ডেন্টিস্টের পরামর্শ গ্রহণ করা উচিত। এর ফলে দাঁত ভালো থাকবে এবং দাঁতের ক্ষয় সৃষ্টি হওয়ার মতো সমস্যা থেকে মুক্ত থাকা যাবে।

ক্যালসিয়াম সমৃদ্ধ খাবার খাওয়া –

আমাদের নিয়মিত ক্যালসিয়াম সমৃদ্ধ খাবার খেতে হবে। কারণ ক্যালসিয়াম আমাদের দাঁতের ক্ষয় রোধ করে। এবং দাঁতকে শক্ত এবং মজবুত রাখতে সহায়তা করে। শরীরে ক্যালসিয়ামের ঘাটতি দেখা দিলে দাঁতের ক্ষয় হওয়ার মত সমস্যা দেখা যেতে পারে।

দাঁত আমাদের অমূল্য সম্পদ তাই দাঁতকে সুস্থ রাখতে হলে সকল নিয়ম কানুন মেনে চলতে হবে। এবং দাঁতে কোনো সমস্যা দেখা দিলে দ্রুত ডেন্টিস্টের পরামর্শ গ্রহণ করতে হবে।

(Visited 30 times, 1 visits today)

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *