যেভাবে বজ্রপাতের ক্ষয়ক্ষতি কমিয়ে আনা যায়

বজ্রপাত হচ্ছে এমন একটি প্রাকৃতিক দুর্যোগ যেটি খুবই বিপদজনক এবং প্রাণঘাতী। প্রতিবছর এই বজ্রপাতের কারণে সারা বিশ্বে বিপুল পরিমাণ মানুষ প্রাণ হারায়। এছাড়া অনেক মূল্যবান সম্পদ নষ্ট হয় এই বজ্রপাতের কারণে। পৃথিবীতে প্রতি সেকেন্ডে একশ এর অধিক বজ্রপাত হয়। যা প্রতি বছর 3.6 ট্রিলিয়ন। তবে সবগুলোই ভূপতিত হয় না। বা সবগুলো দ্বারা মানুষের ক্ষতি সাধিত হয় না। তবে এর পরেও ক্ষতির পরিমাণ অনেক। আমাদের দেশে বেশিরভাগ বর্জ্যপাত হয় মার্চ এবং এপ্রিল মাসে  এছাড়া বর্ষা মৌসুমে  বজ্রপাত হয়ে থাকে। বজ্রপাতের সময় বেশিরভাগ ক্ষতিগ্রস্ত হয় ইলেকট্রনিক্সের যন্ত্রপাতিগুলো। যেমন টিভি,ফ্রিজ, এসি, মোবাইল ফোন ওয়াইফাই রাউটার সহ ইলেকট্রনিক্সের বিভিন্ন যন্ত্রপাতি।

বজ্রপাতের সময় এই সকল ক্ষয়ক্ষতি এড়াতে আমাদের করণীয় বিষয়গুলো হচ্ছে-

বজ্রপাতের সময় আমাদের সকলের উচিত নিরাপদ স্থানে অবস্থান করা।কারন বজ্রপাতের সময় জীবনের ঝুকি থাকে তাই আমাদের সকলের নিরাপদে থাকা উচিত।এছাড়া আমাদের ঘরের ইলেক্ট্রনিক যন্ত্রপাতি টিভি,ফ্রিজ সহ সকল প্রকার বৈদ্যুতিক যন্ত্রপাতির সুইচ অফ করে রাখতে হবে।কারন বৈদ্যুতিক যন্ত্রপাতি সবচাইতে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয় বজ্রপাতের কারনে। এছাড়া বজ্রপাতে সবচাইতে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয় টেলিভিশনে কারণ টেলিভিশনের সাথে থাকার ডিস লাইনের ক্যাবলের কারণে বজ্রপাতের সময় টিভি ক্ষতিগ্রস্ত হয়। তাই যখন বজ্রপাত হয় তখন ডিস লাইনের ক্যাবল পৃথিবী থেকে বিচ্ছিন্ন করে রাখা উচিত। এছাড়া বজ্রপাতের সময় ওয়াইফাই রাউটার গুলো অত্যাধিক পরিমাণে ক্ষতিগ্রস্ত হয়। এ কারণে আমাদের উচিত বজ্রপাতের সময় ওয়াইফাই রাউটারের বৈদ্যুতিক সংযোগ বিচ্ছিন্ন করার সাথে সাথে ইন্টারনেট কানেকশন কেবল খুলে রাখা। তবে যে সকল রাউটারে অপটিক্যাল ফাইবার ক্যাবল ব্যবহার করা হয়েছে সেগুলো না করলেও চলবে। শুধুমাত্র ধাতব এবং বিদ্যুৎ পরিবাহী তার গুলোর মাধ্যমে যেগুলোর কানেকশন দেয়া থাকে সেগুলো খুলে রাখা উচিত। অপটিক্যাল ফাইবার ক্যাবল এ কোন রকম ধাতব পদার্থের ব্যবহার হয় না বলে এটি বজ্রপাতের সময় এক শতভাগ নিরাপদ। আর এ কারণেই যে সকল কানেকশন অপটিক্যাল ফাইবার ক্যাবলের মাধ্যমে সেগুলো খোলার কোন প্রয়োজন নেই।

এছাড়া টিভি ফ্রিজ সহজে কোন বৈদ্যুতিক যন্ত্রপাতি চালানোর ক্ষেত্রে উন্নত মানের মাল্টিপ্লাগ ব্যবহার করা উচিত। বর্তমানে বাজারে সেলফ কন্ট্রোল অনেক মাল্টিপ্লাগ রয়েছে যেগুলো অতিরিক্ত বিদ্যুৎ প্রবাহের সময় বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেয়। যার ফলে ইলেকট্রনিক্স যন্ত্রপাতি গুলো নষ্ট হওয়ার ঝুঁকি কমে যায়। তবে বাজারের সাধারণ মাল্টিপ্লাগ গুলোর চেয়ে এর দাম একটু বেশি। তবে আপনাকে আমরা হাজার হাজার টাকা দামের যন্ত্রপাতিগুলো রক্ষা করতে হলে সামান্য কিছু খরচ করতে হবে। তবে এই সমস্ত মাল্টিপ্লাগ গুলোর দাম একটু বেশি হলেও এগুলো অনেক টেকসই অন্যান্য সাধারণ মাল্টিপ্লাগ এর চেয়ে। তাই আমাদের উচিত সাধারণ মাল্টিপ্লাগ গুলো বর্জন করে উন্নত মানের মাল্টিপ্লাগ ব্যবহার করা।

আমাদের প্রত্যেকের বাসার মধ্যে সংযোগ এর সাথে আর্থিং সংযোগ দেওয়া থাকে। যেটি অতিরিক্ত বিদ্যুৎ প্রবাহ হলে তা সরাসরি মাটিতে পাঠিয়ে দেয়। যার হলে আমাদের অনেক বড় ক্ষতির হাত থেকে রক্ষা পাওয়া সম্ভব। আর্থিং সংযোগ কোথাকার হলে আমাদের বৈদ্যুতিক যন্ত্রপাতি গুলো ক্ষতির হাত থেকে রক্ষা পেতে পারে। তাই আমাদের সকলের উচিত বৈদ্যুতিক সংযোগের সাথে  আর্থিং এর ব্যবহার করা।

এছাড়া বর্তমানে বজ্রপাত প্রতিরোধের জন্য অনেক আধুনিক কৌশল রয়েছে। সেগুলো ব্যবহারের ফলে আমরা বজ্রপাতের ক্ষতিকর দিক থেকে রক্ষা পেতে পারি। আমাদের দেশের মানুষ আসলে সচেতন নয়। আমরা ঠেলায় না পড়লে কোন কাজ করতে চাই না। কিন্তু যখন বিপদে পড়ে যায় তখন আমরা চিন্তা করি আগে থেকে প্রস্তুতি নিলে হয়তো আমরা এ বিপদের হাত থেকে রক্ষা পেতাম। এরপরেও এটি শুধুমাত্র আমাদের চিন্তায় থেকে যায়। বাস্তবে রূপ পায় না কখনো। কিন্তু ভেবে দেখুন আপনার সামান্য সতর্কতা বাঁচিয়ে দিতে পারে আপনার লাখ টাকার সম্পদ। এবং আপনার আমার অমূল্য সম্পদ জীবনকে। তাই আমরা সকলে যেকোনো দুর্যোগ বা সমস্যার পূর্ব প্রস্তুতি নিয়ে থাকবো।

Similar Posts:

    None Found

(Visited 16 times, 1 visits today)

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *