নতুন চুল গজানোর ৫ টি অব্যর্থ উপায়

বর্তমান সময় নারী-পুরুষ উভয়ের চুল পড়ে যাওয়ার সমস্যা প্রকট আকারে দেখা যায়। তবে চুল যেমন পড়ে যাওয়ার সমস্যা রয়েছে তেমন এর সমাধান রয়েছে। রয়েছে নতুন চুল গজানোর জন্য নানা উপায়। সঠিক পরিচর্যা এবং সঠিক স্বাস্থ্য জ্ঞানই পারে আমাদের চুল পড়া রোধ করতে এবং নতুন চুল গজাতে সহায়তা করতে।মূলত চুলপড়া হচ্ছে চুল ঝরার চাইতে কম পরিমাণ নতুন চুল গজানো। কারণ প্রতিদিন আমাদের সবার মাথার চুল কম বেশি ধরে থাকে কিন্তু যখন নতুন চুল গজানোর চাইতে চুল ঝরার পরিমাণ বেশি হয়ে যায় তাতেই আমরা চুলপড়া বলে থাকি।

নতুন চুল গজানোর উপায়

বিভিন্ন কারণে আমাদের চুল পড়ে যায়। এরমধ্যে রয়েছে পুরুষ এবং মহিলাদের হরমোন জনিত সমস্যা। এর পাশাপাশি আরো নানাবিধ কারণ রয়েছে যে কারণে আমাদের চুল পড়ে যায়। এরমধ্যে কয়েকটি উল্লেখযোগ্য কারণ হচ্ছে,অতিরিক্ত দুশ্চিন্তা
করার ফলে আমাদের অনেকের চুল পড়ে যায়। আমাদের সবার জীবনে কোনো না কোনো দুশ্চিন্তার বিরাজ করেন। তবে কারও কারও ক্ষেত্রে দুশ্চিন্তার পরিমাণ অনেক বেশি তাদের চুল পড়ে যাওয়ার প্রবণতাও বেশি দেখা যায় এছাড়াও চুল পড়ে যাওয়ার অন্যতম আরেকটি কারণ হচ্ছে বংশগত কারণ। আমাদের মধ্যে অনেকেই আছে যাদের পূর্বপুরুষদের মাথায় টাক দেখা যায়। বর্তমান প্রজন্মের মাথায় টাক থাকলে বা মাথার চুল পাতলা থাকলে ভবিষ্যৎ প্রজন্মের মাথায় টাক পড়ে যাওয়ার প্রবণতা বা সম্ভাবনা অনেক গুন বেড়ে যায়। এটি একটি বংশগত কারণ। এছাড়াও রয়েছে খাদ্যাভ্যাস, পুষ্টিহীনতা, নেশাজাতীয় দ্রব্য সেবন ইত্যাদি।

আজ আমরা জানবো কিভাবে চুল পড়া রোধ করা যায় এবং নতুন চুল গজানোর জন্য কি কি পদক্ষেপ গ্রহণ করা যায় সে বিষয়ে।

নতুন চুল গজানোর টিপস

চুল পড়া রোধে এ কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ স্বাস্থ্য টিপস-
১-চুল পড়া রোধ করতে এবং নতুন চুল গজাতে বেদানার পাতা দানা এবং খোসা ভালো করে বেটে নিন। এগুলো ভালো করে বেটে তার সাথে সরিষার তেল মিশিয়ে তা হালকা আঁচে গরম করে নিন। এরপরে এটি ঠাণ্ডা করে ভালো করে ছেঁকে নিন এবং একটি বোতলে ভরে রাখুন। সপ্তাহে 2-3 দিন এটি ব্যবহার করলে ভাল ফলাফল পাবেন। একটি চুল পড়া রোধ করার পাশাপাশি নতুন চুল গজাতে সহায়তা করে।

২- আমরা জানি আমলকি চুলের জন্য খুব উপকারী একটি উপাদান। শুকনো আমলকি বা আমলকি চূর্ণ চুল পড়া কমাতে এবং নতুন চুল গজাতে ব্যাপক ভূমিকা রাখে। শুকনো আমলকি বা আমলকি চূর্ণ নারকেল তেলের সাথে ভালভাবে মিশিয়ে নিন এরপরে সেই মিশ্রণ চুলে ব্যবহার করুন। ভালোভাবে চুলে ম্যাসাজ করে কিছুক্ষণ রেখে দিন। এরপরে চুল ধুয়ে ফেলুন। এটি নিয়মিত ব্যবহারের ফলে আপনার চুলের গোড়া শক্ত হবে এবং চুল পড়া বন্ধ হবে এর পাশাপাশি নতুন চুল
গজাবে।

৩- কালোজিরা হচ্ছে একটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ এবং ঔষধ এর উপকরণ।কালোজিরা কে সকল রোগের মহৌষধ বলা হয়। আপনার চুল যদি অতিরিক্ত মাত্রায় ঝরে যায় তাহলে মাথায় নিয়মিত কালোজিরা তেল ব্যবহার করতে পারেন এবং খাবারের সাথে কালোজিরা খেতে পারেন। এটি আপনার শরীরের অন্যান্য প্রকারের সাথে সাথে আপনার চুল পড়া রোধ করবে এবং নতুন চুল গজাতে সহায়তা করবে।

৪- ভিটামিন ই হচ্ছে চুলের জন্য একটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ এবং প্রধান পুষ্টি উপাদান। চুল পড়া রোধ করতে এবং নতুন চুল গজাতে ডিমের সাথে ভিটামিন ই ক্যাপসুল মিশিয়ে চুলে লাগাতে পারেন।

৪- সবুজ ধনেপাতার রস চুলে ব্যবহার করতে পারেন এতে চুল পড়া রোধ হবে চুল কালো হবে এবং নতুন চুল গজাবে।

উপরোক্ত সকল স্বাস্থ্য টিপস মেনে চললে। এবং এসকল ঘরোয়া ট্রিটমেন্ট ব্যবহার করলেই আপনার অতিরিক্ত মাত্রায় চুল পড়া রোধ হবে এবং নতুন চুল গজানো শুরু হবে।

(Visited 35 times, 1 visits today)

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *