ফোনের ডাটা দ্রুত শেষ হয়ে যাচ্ছে? নিয়ে নিন সমাধান

বর্তমান সময়ে অ্যান্ড্রয়েড ফোন স্মার্টফোন ব্যবহারকারীর সংখ্যা প্রচুর। আর যারা এসব স্মার্টফোনগুলো ব্যবহার করে তারা প্রায় সবাই ইন্টারনেট ব্যবহার করে কিন্তু এদের মধ্যে অনেক লোক আছে ওয়াইফাই ব্যবহার করে আবার অনেকে আছে মোবাইল ডাটা অফার ডাটা প্যাক কিনে ইন্টারনেট ব্যবহার করে। আমাদের দেশে ইন্টারনেট ডাটা প্রচুর মুল্যে কিনতে হয়। কিন্তু স্মার্টফোনগুলো প্রচুর পরিমাণে ডাটা খরচ করে। আমাদের মাঝে অনেকেই অভিযোগ করে তাদের মোবাইল ফোনের ডাটা খুব দ্রুত ফুরিয়ে যায়। কিন্তু তারা তেমন কোন কাজ করে না তারা ডাটা ব্যবহার করে। তারপরেও তাদের ডাটা শেষ হয়ে যায়। এর প্রধান কারণ হচ্ছে আমাদের স্মার্ট ফোনের অ্যাপ্লিকেশনগুলো ব্যাকগ্রাউন্ড সবসময় চলতে থাকে। রাপেসেকশন ব্যাকগ্রাউন্ড সবসময় আপডেট নিতে থাকে এবং বিভিন্ন কারণে এগুলো আপনি ইন্টারনেট না চালালেও বাসার সকলে ব্যবহার না করলেও ব্যাকগ্রাউন্ড আপনার ডাটা কাটতে থাকে। আর এর ফলেই আপনার ডাটা প্যাক দ্রুত শেষ হয়ে যায়। এর মূল কারণ হচ্ছে ব্যাকগ্রাউন্ড ডাটা। ব্যাকগ্রাউন্ডের এসব অ্যাপ্লিকেশনগুলো প্রচুর পরিমাণে ডাটা খরচ করতে থাকে। তাই আমরা চাইলে এর ব্যাকগ্রাউন্ড ডাটা অফ করে রাখতে পারি। তবে আবার অনেক গুলো একসাথে দেখব আমাদের প্রয়োজনীয় কিন্তু সেগুলো ব্যাকগ্রাউন্ড ডাটা অফ করে রাখলে সঠিকভাবে কাজ করতে পারে না। এক্ষেত্রে আমরা যদি ব্যাকগ্রাউন্ড ডাটা সরাসরি অফ করে রাখি তাহলে সমস্যার সম্মুখীন হতে হয়। এজন্য আমরা চাইলে যে সকল অ্যাপসগুলো ততটা প্রয়োজনীয় না এবং শুধুমাত্র আমরা প্রয়োজনের সময়ে চালাই সেগুলোর ব্যাকগ্রাউন্ড ডাটা অফ করে রাখতে পারি।

তাহলে আজ আমরা জানবো কিভাবে অ্যাপস ব্যাকগ্রাউন্ড ডাটা বন্ধ করতে হয়।

অ্যাপস ব্যাকগ্রাউন্ড ডাটা বন্ধ করতে প্রথমে আপনার ফোনের সেটিংস অপশনে যেতে হবে। সেটিংস অপশনে যাওয়ার পরে আপনি ডাটা ইউজেস নামে একটি অপশন দেখতে পারবেন। সে টিতে প্রবেশ করুন।
settings > data usage

Stop app background data

এরপরে আপনি যে অ্যাপস এর ব্যাকগ্রাউন্ড ডাটা বন্ধ করতে চান সেটি সিলেক্ট করুন। 

অ্যাপ সিলেক্ট করা হয়ে গেলে আপনার সঙ্গে ঠিক এরকম একটি ইন্টারফেস আসবে।সেখান থেকে আপনি restrike app background data অপশনটি অন করে দিন।

আপনি যে সকল অ্যাপস এর ব্যাকগ্রাউন্ড ডাটা অফ করতে পারেন সেগুলো প্রত্যেকটি এভাবে অফ করে দিন।এর ফলে যেগুলো আপনি ব্যাগ্রাউন্ডড ডাটা অফ করবেন সেগুলো আর কোন প্রকার ডাটা খরচ করবে না ব্যাকগ্রাউন্ডে।এবং আপনার ফোনের অতিরিক্ত ডাটা খরচ হওয়ার হাত থেকে আপনি বাঁচতে পারবেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *